মাদ্রাসাশেরপুর উপজেলা

অজু করার সময় মাদ্রাসাছাত্রীকে তুলে নিয়ে সবজি ক্ষেতে ধর্ষণ!

বগুড়ার শেরপুরে প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় এক মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় শুক্রবার একজনকে গ্রেপ্তারও করেছে পুলিশ ।

আটকের নাম- জামাল শেখ (১৬)। গত বৃহস্পতিবার রাতে ওই ছাত্রীর বাবা শেরপুর থানায় জামালসহ দুজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন। অপর আসামি হলেন- শাহ জামাল (২৮)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শেরপুরের ভবানীপুর দাখিল মাদ্রাসার নবম শ্রেণির ছাত্র মো. জামাল শেখ দীর্ঘদিন ধরে অন্য একটি মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। কিন্তু তার প্রস্তাবে রাজি হয়নি ওই ছাত্রী।
রাতে ওই ছাত্রী টিউবওয়েলে অজু করতে গেলে সেখানে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা জামাল শেখ ও তার সহযোগী শাহ জামাল মেয়েটির মুখ চেপে ধরে পাশের একটি সবজি ক্ষেতে নিয়ে যায়। এরপর সেখানে জামাল শেখ ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে এবং বিষয়টি যাতে জানাজানি না হয় সেজন্য হত্যার হুমকি দিয়ে চলে যায়।

পরে ওই ছাত্রী বাড়িতে ফিরে তার মাকে বিষয়টি খুলে বললে পরিবারের লোকজন ঘটনার পরের দিন স্থানীয় ইউপি সদস্য শামীমকে জানায়। পরে ইউপি সদস্য তাদের আইনের আশ্রয় নিতে বলেন।

বৃহস্পতিবার ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে শেরপুর থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। এ বিষয়ে শেরপুর থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মো. বুলবুল ইসলাম বলেন, অভিযুক্ত জামাল শেখকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামিকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

বাংলাদেশ জার্নাল

বিজ্ঞাপন

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button
ভাষা নির্বাচন