জাতীয়

কণ্ঠশিল্পী খুরশীদ আলমের শারীরিক অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল

একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পী ও বীর মুক্তিযোদ্ধা খুরশীদ আলমের শারীরিক অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল। তিনি এখন শঙ্কামুক্ত।

বিজ্ঞাপন

বর্তমানে রাজধানীর গ্রিন লাইফ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এই গুণী শিল্পী। শিল্পীর বর্তমান শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে তার ছোট ভাই সারোয়ার আলম মামুন জানান, ভাইয়ের সিটি স্ক্যান করা হয়েছে। রিপোর্ট ভালো। ডাক্তার বলছেন শঙ্কার কিছু নেই। দোয়া করবেন।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) দিনগত রাত তিনটার দিকে বগুড়া শহরের চারমাথা এলাকায় প্রাইভেটকারের সঙ্গে ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে খুরশীদ আলম আহত হন। বগুড়া শহর থেকে ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক দিয়ে স্থানীয় হোটেলে ফিরছিলেন তিনি। এরপর তাকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।

হাসপাতালের নিউরো মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক ডা. সুশান্ত কুমার সরকার খুরশীদ আলমের চিকিৎসা করেন। শনিবার এয়ার অ্যাম্বুলেন্স যোগে বগুড়া থেকে ঢাকায় পৌঁছায় তিনি। এরপর রাজধানীর গ্রিন লাইফ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে খুরশীদ আলম জন্ম দিয়েছেন অসংখ্য জনপ্রিয় গান।

তার উল্লেখযোগ্য গানের মধ্যে আছে- ‘মাগো মা, ওগো মা, আমারে বানাইলি তুই দিওয়ানা’, ‘তোমরা যারা আজ আমাদের ভাবছো মানুষ কি না’,‘বন্দি পাখির মতো মনটা কেঁদে মরে’, ‘ধীরে ধীরে চল ঘোড়া, সাথী বড় আনকোরা’, ‘ও দুটি নয়নে স্বপনে চয়নে নিজেরে যে ভুলে যাই’, ‘বাপের চোখের মণি নয়, মায়ের সোনার খনি নয়’, ‘চুমকি চলেছে একা পথে, সঙ্গী হলে দোষ কি তাতে’, ‘যে সাগর দেখে তৃপ্ত দু চোখ’, ‘ঐ আঁকাবাঁকা নদীর ধারে’, ‘তোমার দু’হাত ধরে শপথ নিলাম’।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button