বগুড়ার ইতিহাস

ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে আছে বগুড়ার মসজিদ বাড়ি


প্রায় ১১ বিঘা জমির উপর ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে আছে বগুড়ার ধুনট উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের প্রতাপ খাদুলীর মসজিদ বাড়ি।

বিজ্ঞাপন


স্থানিয় দের ধারনা প্রায় ৪০০ বছর পূর্বে এ মসজিদটি নির্মান করা হয়।কেউ কেউ বলছেন, হিন্দু শাসন আমলে এ মসজিদ টি প্রথমে মন্দির ছিলো পরে মসলিম শাসকেরা এসে এটা কে মসজিদ হিসেবে নির্ধারন করেন।


এ মসজিদটি পর্যায়ক্রমে তিনবার সংস্কার করা হয়। প্রথম বার এটি মন্দির থেকে মসজিদ করা হয়। তার পর প্রায় ১৫০ বছর পূর্বে অর্থ্যাৎ বাংলা ১৩১৩ সনে এটি আবার সংস্কার করে হয়। আবার সর্বশেষ বাংলা ১৪০৪ সনে এ টা সংস্কার করে । কিছু দিন পূর্বে সরকারি অর্থয়নে এটি সংস্কার করা হলেও তা বর্তমান বন্ধ আছে।স্থানিয় দের দাবি এটা ভালোভাবে সংস্কার করা হক। এবং এর সকল জমি সংরক্ষণ করা হক।


এ দিকে এ মসজিদের সাথে একটি পুকুরও রয়েছে, স্থানিয়রা ধারনা করছে এ মসজিদ এর সাথে এ পুকুরটি খনন করা হয়েছিলো।এবং এ মসজিদ কে কেন্দ্র করে একটা মাদ্রসাও গড়ে উঠেছে।


স্থানীয় বাসিন্দা মোস্তফা বলেন, মসজিদ টি ঐতিহ্য রক্ষা করার জন্য আমরা এটির সরকারের কাছে সংস্কার দাবি জানাচ্ছি। মথুরাপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ সেলিম বলেন, আমার বাড়ি মসজিদে বাড়ির সাথে এ মসজিদ টি প্রায় ৪০০ বছর আগে নির্মান করা হয়েছিলো এ মসজিদ টি সংরক্ষণের জন্য কাজ চলছে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button