শেরপুর উপজেলা

বগুড়ার শেরপুরে শিক্ষার্থীদের চুল কেটে দিল শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন

গত ২ দিন ধরে ক্লাস বর্জন করে বিচারের দাবিতে আন্দোলন করছে ওই শিক্ষার্থীরা।

বগুড়ার শেরপুরের ঝাঁজর পঞ্চশক্তি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী লাইব্রেরিয়ান ফরহাদ হোসেন লাভলু শিক্ষার্থীদের মাথার চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় গত ২ দিন ধরে ক্লাস বর্জন করে বিচারের দাবিতে আন্দোলন করছে ওই শিক্ষার্থীরা।

বিজ্ঞাপন

জানা যায়, উপজেলার খামারকান্দি ইউনিয়নের ঝাঁজর পঞ্চশক্তি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী লাইব্রেরিয়ান ফরহাদ হোসেন লাভলু ক্ষিপ্ত হয়ে গত রবিবার সকাল ১০ টায় জাতীয় সংগীত পরিবেশনের পর প্রকাশ্য মাঠের মধ্যে দশম শ্রেণীর নাসিম, কাউছার, জোবায়ের, মিজান, কামাল পাশা, শিপন, শাহাদৎ হোসেন, সাগর, সুজন, জাহিদ, প্রিয়সহ ২০ জন ছাত্রের মাথার চুল কাঁচি দিয়ে কেটে দেন।

এ ঘটনায় ছাত্ররা ওই সহকারী লাইব্রেরিয়ানের বিচার দাবি করে গত ২ দিন ধরে ক্লাশ বর্জন করেছে। বিচার চাওয়াকে কেন্দ্র করে বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের নানা ধরনের হুমকী দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে শিক্ষার্থী শিপনের মা বলেন – আমাদের না জানিয়ে কেন তারা আমার ছেলের চুল কেটে দিলো। আমরা ওই শিক্ষকের বিচার চাই। এ প্রসঙ্গে সহকারী লাইব্রেরিয়ান ফরহাদ হোসেন লাভলু বলেন – ছাত্রদের বেশ কয়েক দিন ধরে চুল কেটে স্কুলে আসতে বলে ছিলাম কিন্তু তারা চুল কেটে না আসায় তাদের মাথার চুল কেটে দিয়েছি।

এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক আব্দুল ওয়ারেজ বলেন – চুল কাটার বিষয় নিয়ে একটু উতপ্ত দেখা দিলে ওই শিক্ষার্থীদের শান্ত করেছি এবং মঙ্গলবার বিকালে অভিভাবকদের ডাকা হয়েছে। এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ নজমুল হক বলেন – শিক্ষক ও ছাত্রদের সাথে কথা বলে দোষি ব্যাক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ লিয়াকত আলী শেখ বলেন – এ ধরনের ঘটনা ঘটে থাকলে শিক্ষকদের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সাখাওয়াত হোসেন জুম্মা

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button