শিবগঞ্জ উপজেলা

বগুড়া শিবগঞ্জে অবৈধ বালু উত্তোলন ও ইট ভাটায় দুদকের অভিযান, আটক ৩!

বগুড়ার শিবগঞ্জে নাগর নদের তলা অবৈধভাবে খুঁড়ে মাটি উত্তোলন করে অনুমতি ছাড়াই তৈরি করা ইট ভাটায় সরবাহ করার দায়ে ২ ব্যক্তিকে ৬ মাসের অপর এক ব্যক্তিকে ১ বছরের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। অনাদায়ে তাদের প্রত্যেককে ২ লাখ টাকা করে জরিমানারও আদেশ দেওয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাজউদ্দিনের ভ্রাম্যমাণ আদালত মঙ্গলবার উপজেলার জাহাঙ্গীরাবাদ নয়াপাড়া এলাকায় সকাল সাড়ে ৮টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত অভিযান চালান।

বিজ্ঞাপন


দন্ডিতরা হলো-শিবগঞ্জ উপজেলার উথলি গ্রামের বিকাশ চন্দ্র মোদকের ছেলে বিজয় কুমার (৪২), একই উপজেলার কিচক এলাকার মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে আনিসুর রহমান (২৯) ও হুদাবালা গ্রামের আসাদ হোসেনের ছেলে তাজেল (২৬)। দণ্ডিতদের মধ্যে বিজয় কুমারকে ১ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়। বাকি দু’জনকে ৬ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। বগুড়া ৪র্থ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সাব ইন্সপ্টের ইফতেখারুল ইসলাম জানান, ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন, ২০১৩ এর ৫ ধারা লংঘনের দায়ে তাদের দন্ডিত করা হয়েছে।


দণ্ডিতরা প্রত্যেকেই কারাবরণ করায় তাদেরকে অর্থদণ্ড পরিশোধ করতে হয়নি। তিনি জানান, অভিযান কালে নাগর নদ থেকে বালু তোলার ৫টি মেশিন ধ্বংস করা হয়েছে এবং দু’টি মামলাও করা হয়েছে। সাব ইন্সপেক্টর ইফতেখারুল ইসলাম বলেন, দন্ডিতরা নাগর নদ থেকে অবৈধভাবে মাটি তুলে বেআইনীভাবে নির্মিত ইটভাটায় সরবরাহ করতো।
অপর‌দি‌কে আজ বুধবার সকা‌লে উপ‌জেলা সহকা‌রি ক‌মিশনার(ভু‌মি) অ‌ফিসা‌র পিএম ইমরুল কা‌য়েস এর নেতৃ‌ত্বে পুনরায় অ‌ভিযান প‌রিচা‌লিত হয়। এসময় কিচক খামটাহাট গাংনাই নদী থে‌কে শ্যা‌লো মি‌শে‌নের সাহা‌য্যে বো‌রিন ক‌রে বালু উ‌ত্তোল‌ন কা‌লে মে‌শিন ও পাইপ আগুন দি‌য়ে পু‌ড়ি‌য়ে দেওয়া হয়।


শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলমগীর কবীর জানান, দুদকের মহাপরিচালক ও এনফোর্সমেন্ট ইউনিটের প্রধান মোহাম্মদ মুনীর চৌধুরীর নির্দেশে ওই আদালত পরিচালনা করা হয়। তিনি জানান, অভিযানে দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-পরিচালক মোঃ মনিরুজ্জামান, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) এবং ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন।


অভিযান প্রসঙ্গে দুদক এনফোর্সমেন্ট ইউনিটের প্রধান মাহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী ভবিষ্যতে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত রাখার কথা জানিয়ে বলেন, ‘পরিবেশ বিধ্বংসী অপরাধ থেকে যারা অবৈধ অর্থ উপার্জন করছে, তাদের সম্পদের হিসাব বের করে দুদক শীঘ্রই।


এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button