গণমাধ্যম সংক্রান্ত

মীনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড ২০১৮ পেলো বগুড়া লাইভের এডিটর ফাহিম

শিশুদের যুদ্ধের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহারের উপর একটি বিশেষ প্রতিবেদন করে  প্রিন্ট/অনলাইন রিপোর্ট আন্ডার এইটটিন ক্যাটাগরীতে গোটা বাংলাদেশের মধ্যে শ্রেষ্ঠ রিপোর্টার হিসেবে ১ম স্থান অর্জন করে বগুড়া লাইভের এডিটর ফাহিম আহম্মেদ রিয়াদ

২০ নভেম্বর ঢাকার প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো  ১৪তম মীনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড । শিশু অধিকার বিষয়ক বিষয়ে শিশুদের উৎসাহিত  করার জন্য ইউনিসেফ এই বার্ষিক পুরষ্কার  প্রদান করে।

বিজ্ঞাপন
শিশু অধিকারের প্রতিবেদনে  মিনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ডে মোট ৫০ টি মিডিয়া পেশাজীবীকে সম্মানিত করা হয়।  এ বছর সারা বাংলাদেশের ছোট বড় প্রায় ৮৫০ জন সাংবাদিক, লেখক ও অন্যান্য গুণীজনরা এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে ১৪টি ক্যাটাগরীরর ৮৫জন মননীত হয়েছিল।
তাদের মধ্যে প্রিন্ট/অনলাইন রিপোর্ট আন্ডার এইটটিন ক্যাটাগরীতে ১ম স্থান অধিকার করে “শ্রেষ্ঠ রিপোর্টার” নির্বাচিত হয়েছে বগুড়ার কাহালু উপজেলার সন্তান ও সংবাদিক সরদার এ. কে. এম. রেজাউল হকের পুত্র মোঃ ফাহিম আহম্মেদ রিয়াদ।
উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিল ইউনিসেফ বাংলাদেশের রিপ্রেজেন্টেটিভ এডওয়ার্ড বাইবেদার, প্রখ্যাত লেখিকা সেলিনা হোসেন, ইউনিসেফ বাংলাদেশ গুডউইল অ্যাম্বাসেডর ও জনপ্রিয় চিত্র অভিনেত্রী মৌসুমী, বিখ্যাত জাদুকর জুয়েল আইচ সহ ইউনিসেফ বাংলাদেশের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ, বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ, লেখক, প্রাবন্ধিক, ফটোগ্রাফার, রেডিও জকিবৃন্দ সহ আরোও অন্যান্যরা। তার লেখা রিপোর্টটির শিরোনাম ছিল “শিশুদের যুদ্ধের হাতিয়ার আর নয়”। প্রথম স্থান অর্জনকারী ফহিমকে ইউনিসেফের পক্ষ থেকে ৫০হাজার টাকা, ক্রেষ্ট ও সনদ প্রদান করা হয়।
বগুড়া লাইভের সম্মানিত এডমিন শাহ বিন তৌফিক এর সঙ্গে ফাহিম
বর্তমানে সে বাংলাদেশের অনলাইন নিউজ পোর্টাল বিডিনিউজ ২৪ এর হ্যালো সেকশনে শিশু সাংবাদিক হিসেবে যুক্ত আছে। এছাড়াও বগুড়া লাইভের সাথে এডিটর হিসেবে প্রায় ১ বছর হলো কাজ করে যাচ্ছেন । বিভিন্ন প্রিন্ট ও অনলাইন পত্রিকার সাংবাদিক হিসেবেও যুক্ত আছেন ফাহিম।
বগুড়া লাইভের পক্ষ থেকে ফাহিম এর প্রতি রইল অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button
ভাষা নির্বাচন