শেরপুর উপজেলা

নিখোঁজের ১৪ দিনেও সন্ধান মেলেনি মাদ্রাসা ছাত্র সিয়ামের

আজ ১৪ দিন যাবত নিখোঁজ রয়েছে মাদ্রাসা ছাত্র নূরনবী সিয়াম । এতদিনেও তার কোন সন্ধান পাওয়া গেল না। আসলে সে জীবিত না মৃত। এ অবস্থায় চরম দুশ্চিন্তায় দিনাতিপাত করছেন সিয়ামের পরিবার। ছেলের শোকে মা-বাবাও প্রায় পাগল। গত ০৬নভেম্বর বগুড়ার শেরপুর শহরের খেজুরতলা নতুন বাসটার্মিনাল এলাকা থেকে নিখোঁজ হয় মাদ্রাসা ছাত্র নূরনবী সিয়াম। এরপর থেকে অনেক খোঁজাখুঁজির পরও তাকে না পাওয়ায় পরিবারের পক্ষ থেকে গত ৮নভেম্বর শেরপুর থানায় একটি জিডি করা হয়। যার নং-৩৫৬।

বিজ্ঞাপন

থানায় দায়ের করা জিডি থেকে জানা যায়, সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার হাটিকুমরুল এলাকার আব্দুল মালেকের ছেলে ও স্থানীয় চন্দাইগাতী হাফেজিয়া মাদ্রাসা ছাত্র নূরনবী সিয়াম গত ২৬আগস্ট শেরপুর উপজেলার শাহবন্দেগী ইউনিয়নের বাগড়া চকপোতা গ্রামস্থ নানা নূর হোসেনের বাড়ি আসে বেড়ানোর জন্য। এখানে দশদিন অবস্থান করে সে। এরপর গত ৬নভেম্বর মাদ্রাসায় যাওয়ার জন্য নানা বাড়ি থেকে বের হন। নানা নূর হোসেন বাসটার্মিনাল থেকে সিরাজগঞ্জের একটি বাসেও তুলে দেয় তাকে। কিন্তু এরপর থেকেই সিয়ামের কোন সন্ধান মিলছে না। এমনকি পরিবারের পক্ষ থেকে সম্ভাব্য বিভিন্নস্থানে খোঁজাখুঁজিও করা হয়। নিখোঁজ ওই মাদ্রাসা ছাত্রের বয়স অনুমান ১৩বছর। তার শরীরে নেভি ব্লু রঙের পাঞ্জাবী ও পায়জামা রয়েছে। উচ্চতাও প্রায় ৪ফুট হবে বলে থানায় দায়ের করা জিডিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

এদিকে নিখোঁজ হওয়া নূরনবী সিয়ামের বাবা আব্দুল মালেক অত্যান্ত ভারাক্রান্ত মনে বলেন, আমি ছেলেকে নিয়ে ভীষণ দুশ্চিন্তায় আছি। ছেলেটি আমার বাইচ্যা আছে না মইরা গেছে তাও জানতে পারলাম না। ওর মা নুরুন্নাহার বেগমতো তো প্রায় পাগলই হয়ে গেছে। আমি গরীব হলেও ছেলের সন্ধান পেতে চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। এরপরও কোন সহৃয়বান আমার কিশোর ছেলেটির সন্ধান পেলে ০১৭৩৩-১৬৬৩৯৭ মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করতে তিনি অনুরোধ করেন।

এ প্রসঙ্গে শেরপুর উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাব্বী হাসান বলেন, ছেলেটির সন্ধান পেতে পুলিশও তৎপর রয়েছে। সে হারিয়ে গেছে নাকি তাকে অপহরণ করা হয়েছে তাও ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে তিনি দাবি করেন। একইসঙ্গে কেউ ছেলেটির সন্ধান পেলে ০১৭১৩-৩৭৪০৬৯ বা ০৫০২৯-৭৭০০৯ নম্বরে যোগাযোগ করতেও অনুরোধ করেন তিনি।

 

  • রাকিবুল ইসলাম 

 

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button
ভাষা নির্বাচন