প্রয়োজনীয় তথ্য

প্রযুক্তির ছোয়া মোবাইল এসে পাল্টে গেছে ডাক বাক্স

যখন তোমার কেউ ছিলনা তখন ছিলাম আমি এখন তোমার সব হয়েছে পর হয়েছি আমি

যুগের পরিক্রমায় গানটির সমাজ বাস্তবতা দৈনন্দিন জীবন থেকে হারিয়ে গেছে।কবি মহাদেব সাহার ‘চিঠি দিও’ কবিতার মতোও এখন আর কেউ তার প্রিয়তমাকে আকুতি করে বলে না ‘করুণা করে হলেও চিঠি দিও, খামে ভরে তুলে দিও/আঙ্গুলের মিহিন সেলাই/ ভুল বানানেও লিখো প্রিয়, বেশি হলে কেটে ফেলো তাও, এটুকু সামান্য দাবি, চিঠি দিও, তোমার শাড়ির মতো/ অক্ষরের পাড়-বোনা একখানি চিঠি।

বিজ্ঞাপন

এক সময়ের জনপ্রিয় ডাক পিয়নের একটি ডাকে ঘুম  ভাঙ্গে ও বুঝি আমার চিঠি এলো’ প্রখ্যাতশিল্পীর এই খ্যাতনামা সঙ্গীত এখন আর মানুষের মনেনাড়া দেয়না।

বিজ্ঞাপন

জনপ্রিয় কন্ঠ শিল্পী মনির খানগেয়েছেন ‘চিঠি লিখেছে বউ আমার ভাঙ্গা ভাঙ্গা হাতে’…।এ গানটি বেশি দেরির নয়। তবুও মনে হচ্ছে কয়েক যুগ আগের গান। পরিস্থিতি সে রকমেই বুঝাচ্ছে।এখন আর বউ রাত জেগে, মোমবাতি জ্বালিয়ে শ্বাশুড়ী-ননদীর দেখে ফেলার ভয়ে ভয়ে চিঠি লিখে না। স্বামী-স্বজন একটি হলুদখামের অপেক্ষায় প্রহর গুনে না। পোষ্ট অফিসে বার বার গিয়ে খবর নিতে হয় না-একটি চিঠি গ্রাম থেকে এসেছে কিনা! আধুনিক সমাজ ব্যবস্থা ধ্বংস করেছে বাঙালী জাতির ঐতিহ্যকে। চিরচেনা সেই ডাক পোস্ট অফিস এখনো আগের মতই আছে। তবে নেইকর্মব্যস্ততা। নেই প্রাপক-প্রেরকের উপস্থিতিও। মাঝে মাঝে সরকারী-বেসরকারীকিছু জরুরী কাগজ-পত্র এ ডাক পোস্টে আসলেও মানুষ এখন বেসরকারী ব্যবসায়ীপ্রতিষ্ঠান কুরিয়ার সার্ভিসের প্রতি দূর্বল ।

যেখানেডাক পোস্টে একটি হলুদ খাম ৩টাকা এবং ভিআইপি (জরুরী ভিত্তিতে) ৭ টাকা নেয়, সেখানে কুরিয়ার সার্ভিস নিচ্ছে ১৫-২৫ টাকা পর্যন্ত। তবুও মানুষ টাকারপরিমান না দেখে কুরিয়ার সার্ভিস ব্যবহার করছেন।কোন কোন পোস্ট অফিসে চিঠি প্রাপক-প্রেরকের দেখা মিললেও তা এক সময়ের এ কর্মব্যস্ত অফিসের তুলনায় বেশ বেমানান।

প্রযুক্তির ছোয়া মোবাইল এসে পাল্টে গেছে ডাক বাক্স, পোষ্ট বক্সটি যেনপথিকের দিকে যে তাকে উদ্দেশ্য করে একথা গুলি বলছে। অর্থাৎ এমনিএকদিনছিলযে চিঠি পত্রের মাধ্যমে এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তের স্বজনদের খোজ খবরনিতে আমরা সকলে পোষ্ট অফিসের পোষ্ট বক্সটি ব্যবহার করতাম।সে যেন নিরবেপথিকে বলছে যখন তোমার কেউ ছিলনা আমি ছিলাম একমাত্র তোমাদের ভরসা।

দেশে আধুনিকায়নের সাথে মানুষ সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে দিন দিন।ইন্টারনেটের মাধ্যমে মানুষ ফেইসবুক, মুঠোফোন, এসএমএস এর আড়ালে পড়ে যাচ্ছে। আজকাল তরুণ প্রজন্ম জানেই না পোস্ট অফিস কোথায় এবং এর কাজ কি? কেননা- তৃতীয় প্রজন্ম ইন্টারনেটের মাধ্যমে ই-মেইল, জি-মেইল ও ফেইসবুকের কল্যাণে চিঠি বাছবি ও ফাইল আদান-প্রদান করে থাকেন। ইদানিং মোবাইল থেকেও এমএমএস (ছবিআদান-প্রদানের মাধ্যম), এসএমএস (চিঠি বা বার্তা পাঠানোর মাধ্যম) করে দ্রুতসময়ের মধ্যে ডকুমেন্ট মুর্হুতে সারা পৃথিবীতে পাঠানো যাচ্ছে। হয়ত: সেদিন আরবেশি দূরে নয়, যেদিন ‘ডাক পোস্ট নামে দেশে এক সময় চিঠি-বার্তাআদান-প্রদানের একটি মাধ্যম ছিল’ বলে ইতিহাসে লেখা থাকবে।

রাকিবুল ইসলাম

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button