দুপচাঁচিয়া উপজেলা

দূপচাঁচিয়া লাইজু গরীব রোগীকে চিকিৎসা সেবা দেন বিনামূল্যে

বগুড়ার দূপচাঁচিয়া উপজেলার গুনাহার ইউনিয়ানের সাহেব বাড়ীর সৈয়দ মোতাহার হোসেন খানের নাতী, মরহুম খন্দকার হায়দার আলীর ছেলে জার্মান আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা আসাদুর রহমান খন্দকার লাইজু। যিনি ১৯৯৭ সাল থেকে গরীব অসহায় অসুস্থ মানুষের জন্য ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প করে গরীব রোগীকে চিকিৎসা সেবা এবং বিনামূল্যে ঔষধ সরবরাহ করেন।
 
শুধু কি তাই, যেসব রোগীকে উন্নত চিকিৎসা দরকার সে সব রোগীকে ঢাকায় নিয়ে চিকিৎসা করান তিনি। ২০০০ সালে ফেব্রুয়ারী মাসে ৪২ জন গরীব অসহায় অসুস্থ মানুষকে বিদেশে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা করান তার অর্থায়ানে । তাদের মধ্যে ৬ জন কে র্হ্যাট অপারেশন করতে হয়।
 
তিনি বিভিন্ন উপজেলায় গ্রামে গ্রামে হাসনা হায়দার ফ্রি মেডিসিন ক্যাম্পের আয়োজন করেন। ২০ জন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার প্রতিটি ক্যাম্পে প্রায় বারশত রোগী দেখেন । বিভিন্ন হাটে বাজারে সাধারণ মানুষের মাঝে সন্ত্রাস, মাদক, দূর্নীতি, জঙ্গীবাদ, বাল্য বিবাহ বন্ধ, সবার জন্য সুশিক্ষা জন্য সচেতনা মূলক উপদেশ দেন।
 
এছাড়াও অসহায় মানুষকে সাহায্য করা মসজিদ মন্দির তার ব্যক্তিগত ভাবে অনুদান দেওয়া ,গরীব ছেলে মেয়েদের বৃত্তি প্রদান গরীব কৃষকদের মাঝে গভীর নলকূপ দেয়া অসহায় ছেলে মেয়েদের বিবাহ দেয়া সহ বিভিন্ন ভাবে সাহায্য করেন এই মানুষটি।
 
লাইজু বলেন আমি খুবই পজেটিভ মাইন্ডের একজন মানুষ। সব সময়ই হাসিখুশি থাকতে পছন্দ করি। সবাই আমার মুখে হাসি দেখতে চাই । সেজন্য আমি যখন সুযোগ পাই তখনি আমি হাসনা হায়দার ফ্রি মেডিসিন ক্যাম্পটি আয়োজন করি।
 
আমি সবসময় ভালো থাকারই চেষ্টা করি। তবে উপরওয়ালার কাছে অনেক অনেক কৃতজ্ঞ আমি এই জন্য যে, কখনো কোন কাজে চেষ্টা করে আমি ব্যর্থ হই নাই বললেই চলে, সফলই হই। তবে সবসময় যে চাইলেই ভালো থাকা যায় তাও নয়। মানুষ যাতে আনন্দে থাকে ভালো থাকে, সে জন্য মানুষকে সাহায্য করতে আমি চেষ্টা করি ।

বিজ্ঞাপন

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button