বগুড়া সদর উপজেলা

বগুড়ায় পেপার মিলস এ কর্মসংস্থান হয়েছে ২৫ হাজার শ্রমিকের!

বগুড়া শহর থেকে প্রায় ২০ কিলোমিটার অদূরে দুপচাঁচিয়া উপজেলার তালোড়া বাজার। সেই বাজার থেকে আরও এক কিলোমিটার দূরে প্রান্তিক এলাকায় গড়ে উঠেছে সূচি পাল্প অ্যান্ড পেপার মিলস লিমিটেড। এই পেপার মিলে প্রতিদিন গড়ে ৩০ টন নিউজপ্রিন্ট ও মিডিয়াম পেপার উত্পাদন হচ্ছে। বছরে কাগজ উত্পাদন হচ্ছে গড়ে প্রায় ১১ হাজার মেট্রিক টন। এখানে কর্মসংস্থান হয়েছে প্রায় ৩০০ শ্রমিকের। এতে করে গ্রামাঞ্চলের বেকার নারী-পুরুষের কর্মসংস্থান হয়েছে।
 
বগুড়ায় ফেলনা কাগজ থেকে হচ্ছে নিউজপ্রিন্ট। টোকাইয়ের মাধ্যমে সংগ্রহ বিপুল পরিমাণ ফেলনা কাগজ দিয়ে বগুড়ার ৬টি মিল ও ১৮টি বোর্ড মিলে বছরে উত্পাদন হচ্ছে দেড় লাখ মেট্রিক টন কাগজ। কর্মসংস্থান হয়েছে ২৫ হাজার শ্রমিকের।
 
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,সামপ্রতিক সময়ে বগুড়ায় বৃহত্ উত্পাদন ইউনিট নিয়ে বগুড়া ৬টি পেপার মিলস্ কারখানা গড়ে উঠেছে। এসব কারখানায় পুরোদমে উত্পাদনও শুরু হয়েছে।
 
এরমধ্যে ২০০৯ সালে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের টিএমএসএস-এর প্রধান কার্যালয় সংলগ্ন এলাকায় গড়ে ওঠে বিসিএল পেপার মিলস্। এর পাশাপাশি সময়ে শহর থেকে প্রায় ২৫ কিলোমিটার দূরে বগুড়া-রংপুর মহাসড়কের ফাঁসিতলা এলাকায় গড়ে ওঠে রাজা পেপার অ্যান্ড বোর্ড মিলস লিমিটেড, বগুড়া শহরতলীর এরুলিয়া এলাকায় গড়ে ওঠে হাসান পাল্প অ্যান্ড পেপার মিলস্, বগুড়া দুপচাঁচিয়া সড়কের পাশে আজাদ পাল্প অ্যান্ড পেপার মিলস, বগুড়া-কাহালু সড়কের পাশে গড়ে ওঠে কিবরিয়া পাল্প অ্যান্ড পেপার মিলস এবং দুপচাঁচিয়া উপজেলার তালোড়া বাজারে গড়ে ওঠে সূচি পাল্প অ্যান্ড পেপার মিলস্।
 
এসব পেপার মিলের বদৌলতে কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হয়েছে প্রায় ২৫ হাজার মানুষের।

বিজ্ঞাপন

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button