খেলাধুলাজাতীয়

কলা পাতায় করে মজলিস খাওয়ার বিরল দৃষ্টান্ত দেখালেন মুশফিক

মুশফিকুর রহিম ; একজন সাদা মনের মানুষ, হাজার মানুষের সাথে মাটিতে বসে কলাপাতায় খাবার খেলেন!

আজ থেকে অনেক দিন আগেই হারিয়ে গেছে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য দীর্ঘ কালের কলার পাতায় করে মজলিস খাওয়া।
এক সময় কলার পাতা ছিল মজলিস খাবার প্রধান আসন যেখানে খাবার অনুষ্ঠান সে এলাকায় ৮/১০দিন আগে থেকেই বিভিন্ন বাগানে কলাপাতা কাটার ধুম পড়ে যায়। বর্তমানে ওয়ান টাইম প্লাষ্টিকের প্লেট আর গ্লাস অতি সহজেই বাজারে পাওয়া যায়। ফলে কলার পাতার আর গ্রাম বাংলাতে ও চলিত নেই।
এখন থেকে ২০/২৫ বছর আগে কলার পাতা ছাড়া কোন মজলিস খাওয়া হয়নি। মজলিসের দিন তারিখ ঠিক হওয়ার ১০/১২দিন আগে থেকেই এ গ্রাম ও গ্রাম দূরদুরান্ত খেকে কলাপাতা সংগ্রহ করতে ব্যস্ত থাকতো যুবক ছেলেরা।
তাছাড়া এখন আগের মত আর কলার পাতার প্রয়োজন হয় না। দোকান থেকে ওয়ান টাইম প্লেট গ্লাস আর না হলে পলিথিন শক্ত কাগজ দিয়েই মজলিস পারি দিচ্ছে।
কিন্তু সময়ের বিবর্তনে কলাপাতা করে মজলিস খাওয়ার কথা ভুলে গেলেও আমাদের লিজেন্ড মুশফিকুর রহিম ভোলেনি। গত কুরবানি ঈদে বগুড়ার শেরপুরের মাগুরাতাইড়  সেই কথা এবং তিনি যেমন বাংলাদেশের গর্ব তার মন টাও তেমনি সুন্দর ও সাদা মনের মানুষ।
তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেটের একজন উজ্জ্বল নক্ষত্র হলেও তিনি যেমন খেলা দিয়ে বাংলার মানুষের মন জয় করেছেন তেমনি তার কিছু কর্মকান্ড দিয়ে মানুষকে করেছেন অবাক।
তার মনে বিন্দু পরিমাণ অহংকার নেই। উক্ত ছবিতে তিনি গত কুরবানি ঈদে বগুড়া জেলার শেরপুরের মাগুরাতাইড় গ্রামে হাজার হাজার সাধারণ মানুষের সাথে এক হয়ে তিনি ও তার স্ত্রীকে নিয়ে মাটিতে বসে কলা পাতায় খাবার খেয়েছেন। শুধু তাই নয়, তিনি সময় পেলেই গরীব ও দুস্থ মানুষের বিভিন্নভাবে সাহায্যে এগিয়ে আসেন।
আমাদের বগুড়ার গর্ব মুশফিক ও তার পরিবারের জন্য বগুড়া লাইভ এর পক্ষ থেকে রইল শুভকামনা।

বিজ্ঞাপন

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button