শেরপুর উপজেলা

সেনাবাহিনীর ভুয়া সার্জেন্ট আটক বগুড়া শেরপুরে

বগুড়া জেলার শেরপুরের রাজাপুর গ্রামে ভুয়া সার্জেন্ট সেজে প্রতারণা করে অনার্সের ছাত্রীকে বিয়ে করার ঘটনায় গত শুক্রবার রাতে প্রতারক মনির হোসেন বাবু (৪৫) কে আটক করেছে শেরপুর থানায় পুলিশ।

জানা যায়, নাটোর জেলার লালপুর উপজেলার দুরদরিয়া গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে সেনাবাহিনীর সার্জেন্ট মনির হোসেন বাবু শেরপুরের মির্জাপুর গ্রামের মৃত অপুর আলীর ছেলে ঘটক মোকছেদ আলীকে ধর্ম পিতা বানায়।

আর সেই সুবাদে শেরপুরের রাজাপুর এলাকায় ঘোরাফেরা করতে গিয়ে গোলাম হোসেনের মেয়ে উম্মে হাফসাকে দেখে পছন্দ করে। পরে তার ধর্ম পিতার কাছ থেকে হাফছার মোবাইল নাম্বার নিয়ে তার সাথে ফোনে কথা বলতে থাকে।
এবং তাদের মধ্য এক পর্যায়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ৩০ জুন ২০১৭ সালে ৭ লাখ টাকা কাবিন দিয়ে তাদের বিয়ে হয়।

উম্মে হাফসা জানান, সে ২০ বছর আগে নাটোর জেলার লালপুর উপজেলার দুরদরিয়া গ্রামের মজের প্রামানিক এর মেয়ে হাসনা খাতুনকে প্রথম বিয়ে করে।

তার প্রথম বিয়ের ৬ বছর পর স্ত্রী ও সন্তানকে রেখে বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার রহিমাবাদ শালুকগাড়ি গ্রামের মৃত ইসমাইল হোসেনের মেয়ে রাজিয়া খাতুন কে ব্যবসায়ী পরিচয় দিয়ে বিয়ে করে।

জানা যায় এভাবে সে বিভিন্ন এলাকায় বিভিন্ন পরিচয় দিয়ে অসহায় মানুষদের লোভ দেখিয়ে প্রতারণা করে আসছে। হাফিসা বলেন এই প্রতারণার বিষয়টি আমি জানতে পারলে গত শুক্রবার রাতে সে আমাদের বাড়িতে আসলে কৌশলে পুলিশে খবর দেই।

পরে শেরপুর থানা পুলিশ রাত ১১ টার দিকে এসে তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button