জাতীয়

বগুড়ার মেয়ে মারইয়াম মাসুদ – ভয়েস অব আমেরিকা টিভিতে

সম্প্রতি মারইয়াম মাসুদকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন করেছে মার্কিন গণমাধ্যম ভয়েস অব আমেরিকা টেলিভিশন। তার পৈত্রিক নিবাস বাংলাদেশের বগুড়া জেলায়। সে এখন মা-বাবার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছে।

বিজ্ঞাপন

মারইয়ামের পৈত্রিক নিবাস বগুড়া শহরের জলেশ্বরীতলায়। মারইয়াম মাসুদ পারিবারিক সম্পর্কের রোমেনা আফাজের নাতীর নাতনী। অসাধারণ প্রতিভার মেয়েটি যেনো জ্ঞান অর্জন, মেধার ধারাবাহিতকার দিক দিয়ে রোমেনা আফাজের সাথে মধুর সম্পর্কের সাক্ষ্য বহন করে।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সির সিক্সথ গ্রেডের ছাত্রী মারইয়াম মাসুদকে দেখলে তার বয়সী অন্যদের চেয়ে আলাদা করা যাবে না। সে বাস্কেট বল খেলতে এবং বই পড়তে পছন্দ করে। কিন্তু মারিয়াম একজন মুসলিম শিশু ইউটিউবার যে যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। ‘মারইয়াম মাসুদ’ নামের ইউটিউব চ্যানেলে মারইয়াম কোটি কোটি মুসলিম শিশুকে আরবি পড়তে ও লিখতে শেখাচ্ছে ও অনুপ্রাণিত করছে। কিছু ভিডিওতে মারইয়াম ইসলামী গান গেয়েছে।

ইউটউবে মারইয়ামের ভিডিওগুলো ৭.১ কোটি বারেরও বেশি দেখা হয়েছে বলে জানায় মার্কিন গণমাধ্যম ভয়েস অব আমেরিকা। সম্প্রতি প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে গণমাধ্যমটি আরও জানায়, মারইয়াম মাত্র নয় বছর বয়সে একজন হাফেজে কোরআন হয়েছে।

Maryam Masud Youtube channel

ভয়েস অব আমেরিকাকে মারইয়াম বলেন, ‘আমি তরুণ প্রজন্মকে কোরআন শিখতে ও পড়তে উৎসাহিত করতে চাই। তাদের উচিত ছোটবেলা থেকেই কোরআন পড়া এবং মানবতার কাজে সক্রিয় হওয়া। আমি ইউটিউব ও সামাজিক মাধ্যম ব্যবহার করে এই বার্তা ছড়িয়ে দিচ্ছি।’

মারইয়াম নিউইয়র্ক ভিত্তিক গাইড টিভি ও আইটিভিরও একজন প্রেজেন্টার হিসেবে কাজ করছেন। মারইয়াম তার ইউটিউব ভিডিওগুলো নিজেই এডিট করে।

ভবিষ্যতে সে একজন ইঞ্জিনিয়ার ও মুসলিম চিন্তাবিদ হয়ে মানুষের সেবা করে যেতে চায়।

www.facebook.com/MaryamMasudLaam

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button