জাতীয়

বগুড়া জেলায় আউশ ধানের ভালো ফলন হলেও দামে হতাশ কৃষকরা

বগুড়ায় আউশের ফলন ভালো দামে হতাশ কৃষক

বিজ্ঞাপন

বগুড়া জেলায় এ বছর আউশ ধানের ভালো ফলন হলেও দামে হতাশ কৃষকরা। এই ধান চাষ করে এখন খরচের টাকাই উঠছে না। ভালো ফলনেও প্রতি বিঘায় কৃষকদের লোকসান দিতে হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

বগুড়া জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ বছর জেলায় ২৬ হাজার ১৮২ হেক্টর জমিতে আউশের চাষ করা হয়েছে। গত বছরের তুলনায় এবার চার হাজারের বেশি জমিতে আউশ চাষ হয়েছে। এর মধ্যে বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলায় সবচেয়ে বেশি ৮৫০ হেক্টর জমিতে ধান চাষ হয়েছে। তুলনামূলকভাবে নন্দীগ্রাম উপজেলায় বেশি পরিমাণে আউশ চাষ হয়ে থাকে। জেলায় এ বছর ধান উত্পাদনের লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে ১ লাখ ৬৮৫ মেট্রিক টন। ইতোমধ্যে ৭৫ ভাগ ধান কাটা হয়েছে। আগামী সপ্তাহের মধ্যে সব ধান কাটা শেষ হয়ে যাবে।

কৃষি বিভাগ জানিয়েছে, জেলার নন্দীগ্রাম, শেরপুর, সারিয়াকান্দি, সোনাতলা, গাবতলী ও ধুনট উপজেলায় আউশ ধানের চাষ হয়ে থাকে। এবার উন্নতজাতের ধান চাষের কারণে কৃষকরা ভালো ফলন পেয়েছে বলে জানিয়েছেন কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা। আউশ ধান জাতগুলোর মধ্যে রয়েছে— ব্রি-২৬, ২৭, ২৮, ৪৮, বীনা সেভেন ও মেরিকা। এই জাতের ধান অন্য ধানের চেয়ে বেশি ফলন হচ্ছে। বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় ধানের দাম কমের পাশাপাশি ফলন কম হয়েছে বলে দাবি করেছেন কৃষকরা। ধান কাটা-মাড়াই চললেও কৃষকের মুখে হাসি নেই।

 

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button