নাগরিক সেবা

বিডি ক্লিন বগুড়া ছেলেমেয়েদের চিন্তা চেতনায় এখন “সাতমাথা”

বগুড়ার প্রান কেন্দ্র সাতমাথা কে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করার ও রাখার ব্রত নিয়ে “বিডি ক্লিন বগুড়া” অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত।

বিজ্ঞাপন

বিডি ক্লিন বগুড়া ছেলেমেয়েদের চিন্তা চেতনায়  এখন “সাতমাথা”

বিজ্ঞাপন

কারন, কেন্দ্র কে পরিষ্কার রাখতে পারলে, আশে পাশে এমনিতেই পরিচ্ছন্ন হয়ে যাবে। গত কয়দিন ধরে তারা নিয়মিত সাতমাথায় জমায়েত হচ্ছে এবং অস্থায়ী দোকানীদের বুঝিয়ে কাগজ জমানোর জন্য ঝুড়ি আনাতে পেরেছে। মোটামুটি সবাই এখন ঝুড়ি নিয়ে আসে। গতকাল বিডি ক্লিন বগুড়ার ছেলেমেয়েরা নিজেদের পকেটের টাকা খরচ করে ফেস্টুন বানিয়ে ৪৮ টি দোকানে লাগিয়ে দিয়ে এসেছে। আজো ক্লান্তি নেই বিডি ক্লিন বগুড়ার ছেলেমেয়েদের। ১২ জনের একটি দল আজকেও সাতমাথার সব দোকান পরিদর্শন করে। খেয়াল করে, সব দোকান ফেস্টুন ঝুলিয়েছে। বিক্রেতারা ক্রেতাকে বলছে কাগজ বা ময়লা ঝুড়িতে ফেলতে। আজ গত কয়দিনের চেয়ে অপেক্ষাকৃত কম কাগজ রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। আজ আরো ২২ টি দোকানে ফেস্টুন লাগানো হয়, যাতে লেখা আছে “ময়লা নির্দিষ্ট স্থানে ফেলুন”। বিডি ক্লিন বগুড়ার ছেলেমেয়েরা যথেষ্ট চেষ্টা করছে, বিক্রেতাদের মানসিকতা বদলাতে। বিক্রেতাদের মানসিকতা বদলাচ্ছেও। কিন্তু বদলাচ্ছে না ক্রেতাদের মানসিকতা। তারপরও ক্রেতারা কাগজ বা ময়লা রাস্তায় ফেলছে।

আমরা জানি, এ ভাবে চেষ্টা করতে করতে একদিন ক্রেতাদেরও মানসিকতা বদলাবে। আমরা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন সাতমাথা পাবো। পাবোই। এছাড়াও আলতাফ-আলির গলির কিছু টঙ দোকান এবং পার্ক রোডের সাইকেলের দোকান গুলোর সামনে বেশ কিছু টঙ দোকানে আজ তারা ফেস্টুন লাগিয়েছে।

_অন্তর ফেরদৌস (বগুড়া লাইভ)

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button