বগুড়া সদর উপজেলা

মানব দেহের জন্য ক্ষতিকারক ভেজাল জুস কারখানার সন্ধান পেয়েছে বগুড়া জেলা প্রশাসন

বগুড়ায় অবৈধ জুস কারখানার সন্ধান

মানব দেহের জন্য ক্ষতিকারক ভেজাল জুস কারখানার সন্ধান পেয়েছে বগুড়া জেলা প্রশাসন। বগুড়া শহরের উপকণ্ঠে চারমাথা এলাকার নিশিন্দারা উত্তরপাড়ায় অবৈধভাবে গড়ে ওঠা নকল পানীয় জুস ফ্যাক্টরী শ্রাবন কসমেটিকস এন্ড কনজুমার প্রোডাক্টস নামের কারখানার সন্ধান পেয়ে শনিবার দুপুরে জেলা প্রশাসনের এনডিসি ডালিম সরকার সহ ভ্রাম্যমান আদালতের একটি টিম অভিযানে চালায়।

বিজ্ঞাপন

ভেজাল জুস তৈরী করে বাজারজাত প্রাক্কালে কারখানায় কাপড়ে দেওয়ার রং ও ক্ষতিকারক ক্যামিক্যাল দিয়ে তৈরীকৃত ৯৫ কেস ফলের জুস জব্দ করা হয়। অভিযানকালে কারখানার মালিক জয়পুরহাট জেলার ক্ষেতলাল উপজেলার শিবপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে আবু তাহেরকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় অভিযুক্ত আবু তাহের উপস্থিত জনতার রোষানলে পড়েন।

জেলা প্রশাসনের এনডিসি ডালিম সরকার বলেন, অনুমোদনহীন খাবার উৎপাদন, অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে খাবার তৈরী এবং ভেজাল পানীয় তৈরী করার অপরাধে ভোক্তা অধিকার আইনের ৪৩ ও ৪৪ ধারা মোতাবেক কারখানা মালিকের ৬০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে ৩ মাসের কারাদন্ড প্রদান করা হয়।

জব্দকৃত ভেজাল পানীয় ৯৫ কেস, ২২৮০টি ফলের রস, যার বাজার দর ৫০ হাজার ১শত ৬০ টাকা। সেগুলো উপস্থিত জনগনের সামনে নষ্ট করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে সঙ্গে ছিলেন স্যানেটারী ইন্সপেক্টর শাহ আলী, পেশকার আব্দুল্লাহ আল মামুন, ডিবির এসআই বেদার উদ্দীন, এএসআই সুলতান সহ সঙ্গীয় ফোর্স।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button