নন্দীগ্রাম উপজেলা

বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলাতে ইফতারিতে তালের শ্বাস জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে

বগুড়ার নন্দীগ্রামের বিভিন্ন পল্লীতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে অসংখ্য তালগাছ। আর এই তালের অপরিপক্ক অবস্থায় ভিতরে থাকে নরম একটি শ্বাস। আর এই তালের শ্বাস গ্রাম বাংলার একটি ঐতিহ্যবাহী খাবার হিসেবে পরিচিতি আছে । বর্তমানে রোযার কারনে এর চাহিদা আরো বেড়ে গেছে বহুগুনে । ইফতার পর সবাই তালের দোকানে ভীড় জমায় । তালের শ্বাস খেয়ে মানুষ তাদের আত্তার শান্তি মিটায়। ইফতার পর তালের শ্বাস একটি জনপ্রিয় খাবার হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে এই গরমের দিনে তালের শ্বাস খেয়ে মানুষ তাদের প্রান জুড়ায়।

বিজ্ঞাপন

বছরের একটা নির্দিষ্ট সময়ে তাল গাছে তাল ধরে । বর্তমানে গাছে তাল ধরেছে এবং ঐসব তালে শ্বাস হয়েছে।  তাল গাছে শ্বাস হওয়া শুরু হয় মে-জুন মাসের দিকে। আর ঠিক তখনই গ্রাম-গঞ্জে তালের শ্বাস খাওয়ার ধুম পড়ে যায়। অনেকে আবার গ্রাম অঞ্চলে গিয়ে ভ্যানে করে তাল কিনে এনে শহরে বিক্রি করে। নিজেদের সংসারের একটু উন্নতি করে থাকে।

উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজার ঘুরে নন্দীগ্রাম বাসষ্ট্যান্ডে দেখা যায় অনেকে পসরা সাজিয়ে তালের শ্বাস বিক্রি করছে। তালের শ্বাস গ্রাম-বাংলার একটি জনপ্রিয় খাবার।  উপজেলার রিধইল , সিধইল , তুলাশন ,দোহার ,দাসগ্রাম , ফোকপাল গ্রামের কয়েক জন মুরুব্বি জানান,তাল আমাদের একটি ঐতিহ্যবাহী খাবার । এর শ্বাস খুবই সুস্বাধুকর একটি খাবার, আবার এই তাল থেকে হরেক রকমের পিঠাও তৈরী করা হয়ে থাকে গ্রাম বাংলায় । বিশেষ করে যখন জামাই বাড়িতে আনা হয় তখন এই তালের পিঠা বানানোর ধুম পড়ে যায় । কিন্তু আবহমান কালের ধারায় ঐসব তালের গাছ এখন বিলুপ্ত প্রায়।

মো: ফজলুর রহমান

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button
ভাষা নির্বাচন