উপজেলাকাহালু উপজেলাবগুড়ায় থাকাবগুড়ার ইতিহাস

পীড়াপাটের গোরক্ষনাথ মন্দির

মোঃ ফাহিম আহম্মেদ রিয়াদ (বগুড়া লাইভ): কাহালু উপজেলার আড়োলা বাজার থেকে প্রায় ২/৩ কিলোমিটার পূর্বে বাঁকাদীঘি হাটের পাশে পীড়াপিট গ্রামের ঘোপের আড়া নামক বাঁশঝাড়ের মধ্যে ৯ শতক জায়গাজুড়ে মাটি দিয়ে ঢাকা উঁচু ঢিবির নিচে অবস্থিত এ গোরক্ষণাথ মন্দির। এলাকাবাসীর মতে মন্দিরটি প্রায় ৭/৮শ’ বছর আগের তৈরী। জনশ্রুতি আছে, তৎকালীন ঐ এলাকায় ধ্যানসিং নামের এক জমিদার এ মন্দিরে নিয়মিত দুধ দিয়ে পূজা করতেন। সেই দুধ দিয়ে পূজা করার ধারা এখনও হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ পালন করছেন। তাদেও ধারণা এমন্দিরে দুধ দিরে গাভীর দুধ বেশী হয়।

বিজ্ঞাপন

২০০৫ সালের মে মাসে পীড়াপাট গ্রামের কিছু লোক রাতের আঁধারে ঢিবির মাটি খনন করে মন্দিরের মূল্যবান সম্পদ লুন্ঠন করেন। তবে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের মতে এ ধরনের মন্দিরে গাভী ও বাছুরের ২/৩ কেজি ওজনের স্বর্ণের মূর্তি থাকে। বর্তমানে মন্দিরে প্রত্নতত্ত্ব ও জাদুঘর অধিদফতরের তত্ত্ববোধায়নে রয়েছে।

বিজ্ঞাপন
কাহালুর পাইকর ইউনিয়নের আলোড়ার পীরাপীঠের গোরখনাথ মন্দির – ইন্টারনেট

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button