শিক্ষা

বগুড়ায় প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষায় ৩১ জন বহিস্কার ও ৮ জন গ্রেফতার

আজকে বগুড়ায় প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিতে এসে বহিস্কার হয়েছেন ৩১ জন। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে মোবাইল রাখার ঘটনায় ৮জন গ্রেফতার হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

এবারে বগুড়া জেলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রায় ২০০ সহকারি শিক্ষকের শুন্য পদে লিখিত পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করেছেন প্রায় ১৯ হাজার জনের বেশী।

বিজ্ঞাপন

শনিবার শহরের ৩৭টি পরীক্ষা কেন্দ্রে লিখিত পরীক্ষা গ্রহন শুরু হয় এক সাথে। তবে পরীক্ষা কেন্দ্রে অসুদোপায় এবং মোবাইল ফোনে ম্যাসেজের মাধ্যমে প্রশ্নের উত্তর পত্র বাহির থেকে সংগ্রহ করার কারনে হাতে নাতে ধরা পড়ায় মোট ৩১ জন প্রার্থীকে বহিস্কার করা হয়েছে। তবে এদের মধ্যে ৮ জনের কাছে মোবাইল ফোন পাওয়া যাওয়ায় তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

জানা গেছে কিছু কিছু কেন্দ্রে ডিউটিরত শিক্ষকদের কিছু অর্থ প্রাদান করে ফোন এবং অসুদোপায় অবলম্বন করার পারমিশন নেয়। এবং মোবাইল ফোনের মেসেজের মাধ্যমে উওরপত্র বাহির থেকে সংগ্রহ করা হয়। যা কিনা আইনী আওতার বাহিরে।

শিক্ষা অফিস সলসূত্রে জানা গেছে, ২০১৪ইং সালে জেলার ১২টি উপজেলায় সহকারি শিক্ষকের প্রায় ৬শ’ শুন্যপদ পুরনের উদ্দেশ্যে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছিল ইতি পূর্বে। কিন্তু বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এবং পুল শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ প্রাপ্ত শিক্ষকদেরকে হাইকোর্টের নির্দেশে শুন্য পদে নিয়োগ দেয়ার কারনে নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত করা হয়। প্রায় দীর্ঘ চার বছর পর আবারো নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা হয়।

শনিবার অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় বগুড়া জেলার ১২টি উপজেলায় ৩১ হাজার ৫০৯ জন প্রার্থী থাকলেও পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে মোট ১৯ হাজার ২২২জন।

জানা গেছে এখন পর্যন্ত প্রায় ২০০ পদ শুন্য রয়েছে। তবে চুড়ান্ত নিয়োগের আগে শুন্য পদের সংখ্যা আরো বাড়বে বলে আশা করা যাচ্ছে এবং নিয়োগ প্রক্রিয়া চলাকালে বেশ কিছু সহকারি শিক্ষক পদোন্নতি পাবেন এবং অনেকে অবসরে যাবেন বলে জানা যায়। ফলে ২০০ এর জায়গায় আরও কিছু শিক্ষন নিয়োগ হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button