শিবগঞ্জ উপজেলা

ক্যান্সারে আক্রান্ত জাহিদুল ধুকে ধুকে মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে

সাইফুল্লাহ মানসুর (বগুড়া লাইভ) : অর্থাভাবে থেমে গেছে চিকিৎসা! সহায় সম্বলহীন শশুড়বাড়ি আশ্রিত জাহিদুল(৪৫) এখন হাড্ডিসার।

শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ। আগের মতো আর চলতে পারে না। ধুকে ধুকে মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে সে। কেউ কাছে গেলে ফ্যাল ফ্যালিয়ে তাকিয়ে থাকে এ তাকানো যেন বড় বেদনার। মনে হয় এ দেখা বুঝি তার শেষ দেখা।

কিডনি অকেজো আর ক্যান্সারে আক্রান্ত জাহিদুল বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার কিচক ইউনিয়নের গুপিনাথপুর নয়াপাড়া গ্রামের মৃত ইয়াকুব আলীর ছেলে। কয়েক দফা অপারেশনের পর চিকিৎসার টাকা যোগান দিতে না পেরে গত ২০১৭সালের ডিসেম্বর মাসে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতাল থেকে জাহিদুলকে শশুড় বাড়িতে আনা হয়েছে।

সে থেকে সেখানেই তার থাকা, সহায় সম্বলহীন এই মানুষটির পাশে স্ত্রী নার্গিস বেগম(৪০)। অন্যে বাড়ি ঝিয়ের কাজ করে।

সংসার জীবনে ছেলে সন্তানের আশায় জাহিদুলের পরিবারে আসে একে একে ৪ মেয়ে। বড় মেয়ে ফাতেমা প্রতিবন্ধী(২৫), ২য় মেয়ে পুতুল(২০), ৩য় মেয়ে সাকিলা(১৮), ৪র্থ মেয়ে হাসিনা কিচক উচ্চ বিদ্যালয়ে ১০ম শ্রেনীতে পড়ে।

মজুরি করে শ্যালক রতন মিয়ার উপার্জনে তাদের সবার মুখে দু‘মুঠো ভাত জোটে।

ঢাকা থেকে আসার পর তার দেখভাল স্ত্রী নার্গিস-ই করে থাকেন। স্ত্রী বলেন, ঢাকার ডাক্তার বলেছে ৪/৫লাখ টাকা হলে এ রোগ সেরে যাবে, সে ক্ষেত্রে বিদেশেও নেয়া লাগতে পারে। স্বামীর পাশে বসে দু‘চোখের পানি ছেড়ে দিয়ে বলে এতো গুলো টাকা হামি মেয়ে মানুষ কৈ পামু ভাই!

নার্গিস হাতজোড় করে দেশবাসি সমাজের বৃত্তবানদের কাছে জানান, আমার স্বামীকে আপনাদের সাহায্যে চিকিৎসা দিয়ে বাচাঁন! স্বামী হারালে ৪টি মেয়ে নিয়ে কোথায় গিয়ে দাড়াঁবেন সে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button