আদমদিঘী উপজেলা

বগুড়ার আদমদীঘি-দমদমা সড়কের পার্শ্বে খালের উপড় নির্মিত বেইলী ব্রিজের স্টিলের পাটাতনে ফাটল

আদমদীঘির কদমা সড়কের বেইলি ব্রিজের স্টিলের পাটাতনে ফাটল

বগুড়ার আদমদীঘি-দমদমা সড়কের কদমা মৎস্য খামারের পার্শ্বে খালের উপড় নির্মিত বেইলী ব্রিজের স্টিলের পাটাতনে ফাটল দেখা দেয়ায় যানবাহনসহ সাধারন মানুষদের পারাপারে মারাত্মক ঝুঁকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। যে কোন সময় পাটাতন ভেঙ্গে বড় ধরনের প্রানহানির আশংকা রয়েছে। এলাকাবাসি জরুরি ভিক্তিতে স্টিলের পাটাতন  মেরামত কিংবা নতুন ব্রিজ নির্মানের জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেছেন।

বিজ্ঞাপন

জানা যায়, আদমদীঘি রেলওয়ে স্টেশান থেকে-দমদমা হয়ে সান্তাহার পর্যন্ত সড়কের কদমা মৎস্য খামারের নিকট খালের উপড় ২০০৬ সালে সড়ক ও জনপদ বিভাগের তত্বাবধানে ৬০.৯৬ মিটার দৈর্ঘ্য স্টিলের বেইলী ব্রিজ নির্মান করা হয়।

বিজ্ঞাপন

এই স্টিলের বেইলী ব্রিজের উপড় দিয়ে প্রতিদিন মন্ডবপুর, জোড়পুকুরিয়া, কাশিমালা, রামপুরা, করজবাড়ী দক্ষিনগনিপুর, কদমা, বিশিয়া, পারইলসহ প্রায় ১৮টি গ্রামের হাজার হাজার মানুষ স্কুল ও কলেজগামী ছাত্র ছাত্রীসহ ট্রাক, ইজিবাইক, চার্জার, সিএনজি চলাচল করে থাকে।

ব্রিজ নির্মানের পর পর কিছু নেশাখোর ব্যাক্তিরা ব্রিজের রেলিংয়ের এ্যাংগেল নাটবল্টু চুরি করে নিয়ে যায়। ফলে ব্রিজটি নরবড়ে অবস্থায় রয়েছে। এছাড়া এই স্টিলের বেইলী ব্রিজের পাটাতনে মারাত্মক আকারে ফাটল দেখা দেয়ায় ব্রিজের উপড় দিয়ে যানবাহনসহ সাধারন মানুষদের চলাচলে মারাত্বক ঝুঁকি হয়ে পড়েছে। যে কোন মূহুর্তে পাটাতন ভেঙ্গে প্রানহানিসহ বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটার আশংকা রয়েছে।

উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মতিন জানান, এই স্টিলের বেইলী ব্রিজ স্থানীয় সরকারের অধীন থেকে সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তর হস্তান্তর নেয়ায় তারাই মেরামতের ব্যবস্থা নিবেন।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button