Uncategorized

সামাজিক সচেতনতামূলক ও অনুপ্রেরণামূলক উদ্যোগ হল, ‘ভ্যাসলিন হিলিং প্রোজেক্ট’

এর মাধ্যমে বাংলাদেশের মানুষের পাশে, বিশেষ করে সুবিধাবঞ্চিত এলাকার মানুষের পাশে থেকে তাদের ত্বকের সুস্থতায় সাহায্য করতে এবং স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে দিতে কিছুটা হলেও অবদান রাখতে চেষ্টা করা হচ্ছে।

২০১৭ সালে এর দ্বিগুণ, অর্থাৎ প্রায় এক লাখ মানুষের কাছে এই সাহায্য সাফল্যের সাথে পৌঁছে দিয়েছে ভ্যাসলিন। এছাড়াও প্রতিকূল পরিবেশে ভ্যাসলিন পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহারের মাধ্যমে কীভাবে ত্বককে সুস্থ রাখা যায়, সে বিষয়ে ইতোমধ্যে টিএমএসএস-এর ৩০০ জন ডাক্তার এবং ৬০০ জন নার্সকে অবহিত করা হয়েছে, যেন তারা সুবিধাবঞ্চিত মানুষের মাঝে সচেতনতা ছড়িয়ে দিতে পারেন।

আপনার ডোনেশন পৌঁছে যাবে সুবিধাবঞ্চিত মানুষের কাছে

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button