মুক্তিযুদ্ধ বগুড়া

মুক্তিযুদ্ধকালীন সাব সেক্টর কমান্ডার সাবেক রাষ্ট্রদূত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল গিয়াস উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী (বীরবিক্রম

মুক্তিযুদ্ধ বগুড়া:  – ৩০শে মার্চ আমি এক প্লাটুনসহ অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে বগুড়া রেলওয়ে ষ্টেশনে পৌছাই। হাবিলদার আলী আকবর ২৫ জন ইপিআর; কিছু পুলিশ; ছাত্র সহ মুজিবর রহমান মহিলা মহাবিদ্যালয়ে পশ্চিম পাকিস্তানীদের উপর আক্রমন চালায়। মহিলা মহাবিদ্যালয়ে ওদের ক্যাম্প ছিল। এক রেজিমেন্ট ও আধুনিক অস্ত্রশস্ত্রে ওরা সজ্জিত ছিল। রাত চার ঘটিকার সময় পশ্চিম পাকিস্তানীদের সৈন্যরা পার্শ্ববর্তী অয়ারলেস ষ্টেশন ও এতিমখানার পার্শে পেট্রল ডাম্পে আগুন ধরিয়ে পালিয়ে যায়। মুক্তিযোদ্ধাদের অতর্কিত আক্রমণে তারা ৩০/৩২ টা গাড়ী নিয়ে রংপুরের দিকে পালিয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

* এক রেজিমেন্ট সৈন্য ছিল ? এক রেজিমেন্টে তো প্রায় ৩,০০০-৫,০০০ সৈন্য থাকে। এতো সৈন্য এসেছিল রংপুর থেকে ?

** একটা রেজিমেন্ট তো (লেফটেনেন্ট) কর্ণেল অথবা ব্রিগেডিয়ার (জেনারেল) এর অধীনে থাকে! অথচ যতটুকু যানতে পেরেছি – ক্যাপ্টেন মোহাম্মাদ রেজা’র অধীনে ২৩ ফিল্ড রেজিমেন্ট এর +/- ১ কোম্পানি সৈন্য (আনুমানিক ৮০-২২৫ জন সৈন্য) এসেছিল বগুড়া দখল করতে।

লিখেছেন – আকবর আহমেদ

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button