বগুড়ায় থাকা

ধর্ষণ বৃদ্ধিতে নারীবাদীরা দায়ী: সংসদ সদস্য বগুড়া-৭

বগুড়া-৭ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মো. রেজাউল করিম বাবলু জাতীয় সংসদে বলেছেন, দেশজুড়ে ধর্ষণের ঘটনা বৃদ্ধির জন্য নারীবাদীরা দায়ী।

এমনকি, হেফাজতে ইসলামের সাবেক আমির শাহ আহমদ শফীর কথার সঙ্গে একমত পোষণ করে তিনি নারীদের তেঁতুলের সঙ্গে তুলনা করেছেন।

বগুড়া-৭ আসনের সংসদ সদস্য নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ (সংশোধন) বিল, ২০২০ নিয়ে কথা বলতে গিয়ে এমন মন্তব্য করেছেন।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বিলটি উত্থাপন করেন, যা কণ্ঠ ভোটে পাস হয়। এতে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ডের বিধান নিশ্চিত করা হয়।

সংসদ সদস্য মো. রেজাউল করিম বাবলুর মতে, নারী মুক্তির নামে নারীবাদীরা নারীদের স্বাধীন হতে উত্সাহিত করছে। এতে ধর্ষণকারীরা ধর্ষণে উত্সাহিত হচ্ছে।

তিনি হেফাজতে ইসলামের প্রয়াত আমিরের ‘তেঁতুল তত্ত্ব’ প্রয়োগ করার পরামর্শও দেন। হেফাজতে ইসলামের প্রয়াত আমির ২০১৩ সালে নারীদের তেঁতুলের সঙ্গে তুলনা করেছিলেন।

রেজাউল করিম বাবলু বলেন, ‘মাননীয় স্পিকার, আল্লামা শফীর তেঁতুল তত্ত্ব যদি ব্যবহার করা হয়, তাহলে ধর্ষকরা নিরুৎসাহিত হবে… এবং তাদের মধ্যে ধর্মীয় অনুভূতি বাড়বে।’

২০১৮ সালে সংসদ নির্বাচনে বিএনপির সমর্থন নিয়ে বগুড়া-৭ (গাবতলী- শাজাহানপুর) থেকে নির্বাচিত হন মো. রেজাউল করিম বাবলু।

সংশোধিত এই বিলটিকে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবেও উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমরা অনেক আইন প্রণয়ন করেছি, তবে যথাযথ প্রয়োগের অভাবে আইনগুলো অকার্যকর হয়ে থাকে।’

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button
error: Content is protected !!