শিবগঞ্জ উপজেলা

শিবগঞ্জে পুলিশের হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহ থেকে মুক্ত হলো ৯ম শ্রেণির ছাত্রী

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলা বাল্য বিবাহের দিক থেকে দেশের প্রথম স্থানে থাকলেও বর্তমানে তা কমতে শুরু করেছে। থানা অফিসার ইনচার্জ এসএম বদিউজ্জামান শিবগঞ্জ থানায় যোগদান করার পর থেকে তিনি থানা এলাকায় চৌকস ভূমিকা পালন করেছেন। তিনি প্রতিটি ইউনিয়নে বিট পুলিশিং কার্যক্রম পরিচালনা করছেন।

বিট পুলিশিং এর মাধ্যমে এলাকার ছোট ছোট অপরাধ নির্মূল সহ এলাকায় যাতে আর কোন বাল্য বিবাহ না হয় সেদিকে কঠোর নজরদারী রেখেছেন। গত ১৫ সেপ্টেম্বর তিনি জানতে পারেন শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়নে গুজিয়া এলাকার গুজিয়া বালিকা বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্রী কে বিবাহ দেওয়া হচ্ছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে তিনি দ্রুত  পুলিশ পাঠিয়ে বাল্য বিবাহ বন্ধ করে দেন। এসময় ৫জন কে আটক করা হয়েছে।

আটককৃতরা হচ্ছেন, বর রায়নগর গ্রামের সাইফুল ইসলাম এর পুত্র আরিফ (২৮), একই গ্রামের সাইফুল ইসলাম এর পুত্র ইমরান (৩০), আলোকদিয়ার গ্রামের মোজহারুল ইসলাম এর ছেলে মাহামুদুল হাসান (৩৭), কিচক গ্রামের আজিজুল এর ছেলে বিপ্লব (৩৫), হাজরাবাড়ী গ্রামের মৃত: নাছির উদ্দিন এর ছেলে আঃ ওয়াকিল (৩৫) কে আটক করে থানায় নিয়ে আনা হয়।

শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম বদিউজ্জামান জানান, বাল্য বিবাহ সমাজে অভিষাপ, এতে ছেলে মেয়েদের ভবিষ্যত জীবন নষ্ট হয়। এই থানা এলাকায় যদি কেহ বাল্য বিবাহ দেওয়ার চেষ্টা করে তাহলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Back to top button