পরিবহনস্বাস্থ্য

বাসে, ট্রেনে উঠলেই বমি বমি ভাব, অস্বস্তি? জেনে নিন কী করবেন

কোথাও ঘুরতে যাওয়ার সময়, দীর্ঘক্ষণ ট্রেনে, ট্রামে-বাসে যাতায়াতের ধকলে অনেকেই অসুস্থ বোধ করেন। বমি বমি লাগে। মাথা ব্যথা, মাইগ্রেনের কারণে বা হজমের সমস্যার কারণে বমি বমি ভাব বা শরীরে অস্বস্তি হয়ে থাকে। হঠাৎ কোনও কারণে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়লে বমি বমি ভাব বা শরীরে অস্বস্তি হতে পারে। অনেকেই রাস্তাঘাটে বেরলে বিভিন্ন কারণে অসুস্থ বোধ করেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে বেরিয়ে গেলে বমিও করে ফেলেন অনেকে।

মোশন সিকনেস: যাত্রা পথে গাড়িতে বমি হবার অন্যতম কারন হচ্ছে মোশন সিকনেস যা মস্তিষ্কের এক ধরনের  সমস্যার কারনেই হয়ে থাকে।সাধারণত বাস ,প্রাইভেট কার,মাইক্রো বাসে উঠলে এই ধরনের মোশন সিকনেস হয়।অন্তঃকর্ণ   শরীরের গতি ও জড়তার ভারসাম্য রক্ষা করে।যখন গাড়িতে চড়ি তখন অন্তঃকর্ণ মস্তিষ্কে নির্দেশ পাঠায় যে সে গতিশীল অবস্থায় আছে। কিন্তু চোখ বলে ভিন্ন কথা সে গতিশীল নয়  কারণ তার আশেপাশের মানুষগুলো কিংবা গাড়ির সিটগুলো স্থির। অন্তঃকর্ণ আর চোখ এই সমন্বয়হীনতার কারনেই “মোশন সিকনেস’ হয়।যার ফলে তৈরি হয় বমি বমি ভাব, সেই সাথে মাথা ঘোরা, মাথা ধরা সহ নানা সমস্যা।

মোশন সিকনেস রোধের উপায়: যদি আপানার এই ধরনের সমস্যা থেকে থাকে তাহলে আপনি গাড়িতে উঠে জানালার পাশে বসার চেষ্টা করবেন। যখন গাড়ি চলনশীল থাকবে আপনি জানালা দিয়ে বাইরে তাকিয়ে থাকবেন।এই সময় লম্বা লম্বা শ্বাস নিতে পারেন অনেকটা মেডিটেশনের মত করে।জানালাটা একটু খোলা রাখতে পারেন অল্প অল্প বাতাস আপানার শরীরে লাগবে এতে আপনার ভাল লাগবে ।যাত্রা কালে বই বা পত্রিকা পড়বেন না বা স্থির কোন কিছুর দিকে একদৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকবেন না।

বমি প্রতিরোধে গাড়িতে ওঠার কমপক্ষে আধঘন্টা আগে ডমপেরিডন জাতীয় ওষুধ খেতে পারেন তবে রান্নাঘরে মজুত থাকা সাধারণ কয়েকটি জিনিসের সাহায্যে এই বমি বমি ভাব সহজেই কাটানো সম্ভব। আসুন এ বিষয়ে সবিস্তারে জেনে নেওয়া যাক…

১) লবঙ্গ: এক চামচ লবঙ্গের গুঁড়ো দিয়ে এক কাপ জলে ৫ মিনিট সিদ্ধ করুন। ঠান্ডা হয়ে গেলে আস্তে আস্তে এটি খেয়ে দেখুন। এর স্বাদ যদি কটু লাগে তাহলে এর সঙ্গে এক চামচ মধু মিশিয়ে নিতে পারেন। এ ছাড়া ১-২টি লবঙ্গ চিবিয়ে নিন খেয়ে দেখতে পারেন। এটি সঙ্গে সঙ্গে বমি বমি ভাব দূর করে দেবে।

২) লেবু: বমি বমি ভাব কাটাতে খুব সহজ এবং সস্তা একটি উপায় হল লেবু। এক টুকরো লেবু মুখে নিয়ে কিছুক্ষণ চুষুন। এ ছাড়া এক গ্লাস জলে এক টুকরো লেবুর রস, এক চিমটে নুন মিশিয়ে খেয়ে নিন। এটি দ্রুত বমি বমি ভাব দূর করে দেবে। এক টুকরো লেবু নাকের কাছে নিয়ে কিছুক্ষণ শুঁকে দেখুন, এটিও শারীরিক অস্বস্তি অনেকটাই কমিয়ে দেবে।

৩) জিরে: এক চামচ জিরে এমন একটি উপাদান যা আপনার বমি বমি ভাব মুহূর্তে দূর করে দেবে। এক চামচ জিরে গুঁড়ো করে খেয়ে নিন। মুহূর্তের মধ্যে বমি বমি ভাব দূর হয়ে যাবে। এক চিমটে জিরেও চিবিয়ে খেয়ে দেখতে পারেন। উপকার পাবেন।

৪) লেবু বা লবঙ্গ: মোসন সিকনেসের সমস্যা থাকলে সব সময় সঙ্গে পাতিলেবু বা লবঙ্গ রাখুন। রাস্তায় বমি বমি লাগলে সঙ্গে সঙ্গে মুখে লেবু বা লবঙ্গ দিয়ে দিন। এটি দ্রুত বমি বমি ভাব মুহূর্তে দূর করে দেবে।

৫) আদা: দ্রুত বমি বমি ভাব দূর করতে আদা খুবই কার্যকরী একটি উপাদান। এক টুকরা আদা চায়ের সঙ্গে খান, এটি দ্রুত বমি বমি ভাব দূর করে দেবে। আদা হজমের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। এক চামচ আদার রস, এক চামচ লেবুর রস এবং সামান্য বেকিং সোডা মিশিয়ে খেয়ে দেখুন। এটিও বমি বমি ভাব দূর করতে সাহায্য করবে।

৬) মৌরি: দ্রুত বমি দূর করতে চাইলে অল্প কিছু মৌরি চিবিয়ে খেতে পারেন এতে ভাল কাজে আসবে ।

অনেকে ভ্রমনের আগে অনেক ওষুধ খেয়ে ও কোন কাজ হয় না। উপরের অল্প কিছু নিয়ম মেনে চললেই আপনি আপনার ভ্রমন কে আনন্দময় করে তুলতে পারেন।

Close