খেলাধুলা

প্রথম পেসার হিসেবে টেস্টে ৬০০ উইকেটে জেমস অ্যান্ডারসন

সাদা পোশাকের রেকর্ডে প্রথম পেসার হিসেবে টেস্ট ৬০০তম শিকারের মাইলফলকে পা রেখেছেন ইংলিশ পেসার। আগে তিনজন স্পিনারের আছে ছোট্ট এলিট ক্লাবে নাম লেখানোর কীর্তি।

সাউদাম্পটন টেস্টের পঞ্চম দিনে মঙ্গলবার ছয়শ ক্লাবের মাইলফলক থেকে এককদম দূরে দাঁড়িয়ে মাঠে নামেন অ্যান্ডারসন। শেষ বিকেলে যখন খেলা শুরু হল, বল হাতে পেয়েই ডানহাতি ডেলিভারিতে আজহার আলিকে জো রুটের তালুবন্দি করে ইতিহাস লিখে ফেলেন ৩৮ বছর বয়সী ইংলিশম্যান।

টেস্টে ছয়শ উইকেটের ক্লাবে নাম লেখাতে ১৫৬ ম্যাচ ও ২১৮ ইনিংস লাগল অ্যান্ডারসনের। সাউদাম্পটনে নেমেছিলেন পাশে ৫৯৩ উইকেট নিয়ে। প্রথম ইনিংসে শিকার করেন ৫ উইকেট। চতুর্থ দিনে দ্বিতীয় ইনিংসে ১ উইকেট নিয়ে শেষ করেন। পঞ্চম দিনে বৃষ্টির বাগড়া শেষে মাঠে নেমেই বাজিমাত।

সাদা পোশাকের ইতিহাসে মাত্র চতুর্থ বোলার হিসেবে ছয়শ উইকেটের মাইলফলকে নাম লেখালেন অ্যান্ডারসন। শীর্ষের তিনজনই স্পিনার। শ্রীলঙ্কার মুত্তিয়া মুরালিধরন ধরাছোঁয়ার বাইরে যেয়ে অবসরে গেছেন ৮০০ উইকেট নিয়ে, অস্ট্রেলিয়ার সাবেক লেগস্পিনার শেন ওয়ার্নের নামের পাশে ৭০৮ উইকেট ও ভারতের সাবেক অনিল কুম্বলের শিকার ৬১৯ উইকেট।

অ্যান্ডারসনের পরে তিনজন পেসারের আছে পাঁচশ পেরোনোর অভিজ্ঞতা। অজিদের সাবেক গ্লেন ম্যাকগ্রা ৫৬৩ শিকার রেখে থেমেছেন, উইন্ডিজের কোর্টনি ওয়ালশ ৫১৯ উইকেটে ক্যারিয়ার শেষ করেন। আরেকজন এই টেস্টেই খেলছেন, জিমির সতীর্থ, টেস্ট ইতিহাসের সপ্তম বোলার হিসেবে কদিন আগেই ৫০০ উইকেটের এলিট ক্লাবে নাম লেখানো স্টুয়ার্ট ব্রড। ৩৪ বছর বয়সী ইংলিশ পেসারের পাশে এখন ৫১৪ উইকেট।

সম্পর্কৃত পোস্ট

Close