আন্তর্জাতিক খবর

করোনায় সম্মুখযোদ্ধাদের অভিনন্দন জানানোর পরামর্শ জাতিসংঘের

‘বিশ্ব মানবিক দিবস’ উপলক্ষে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সম্মুখযোদ্ধাদের অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানানোর পরামর্শ দিয়েছেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস। স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ, সেনাবাহিনীসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষেরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অদৃশ্য এই শত্রুর সাথে লড়ছেন নারী, পুরুষ আর শিশুদের রক্ষায়-এ ভিন্ন ধরনের মানবসেবা। আর এটাই হচ্ছে এবারের মানবিকতা দিবসের মূল প্রতিপাদ্য।

মহাসচিব উল্লেখ করেছেন, কঠিন এক বাস্তবতায় সম্মুখযোদ্ধারা অবিস্মরণীয় ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়ে বিদ্যমান সংকট উত্তরণে কাজ করছেন।

১৯ আগস্ট জাতিসংঘ ঘোষিত এই দিবস উপলক্ষে মহাসচিব আরও বলেছেন, করোনা মহামারিতে বিপর্যস্ত বিশ্বে সৃষ্টিকর্তার আশীর্বাদ হিসেবে আবির্ভূত হওয়া সম্মুখযোদ্ধারা বেকার মানুষদেরকেও বেঁচে থাকার স্বপ্ন দেখাচ্ছেন।

গত ডিসেম্বরে চীন থেকে এই ভাইরাসের ছড়িয়ে পড়ার পর প্রতিটি দেশের সুশীল সমাজ, সমাজ-সংগঠক, স্থানীয় পর্যায়ের স্বেচ্ছাসেবকরা স্বতস্ফূর্তভাবে আক্রান্তদের পাশে থেকেছেন। বাসায় খাবার পৌঁছে দিয়েছেন। হাসপাতালে নার্সের সহযোগী হয়েছেন। এমনকি, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষদেরকে উদ্বুদ্ধও করছেন। মহানুভবতার এক অনন্য দৃষ্টান্তে পরিণত হওয়া এসব সম্মুখযোদ্ধারাই এ সময়ের মহামানব।

মহাসচিব উল্লেখ করেছেন, এই সম্মুখযোদ্ধারাই সত্যিকারের বন্ধু, মানবতার অনন্য দৃষ্টান্ত।

উল্লেখ্য, ২০০৩ সালের ১৯ আগস্ট ইরাকের বাগদাদে ক্যানেল হোটেলে বোমা হামলায় ২২ জনের মৃত্যু হয়। মৃতদের মধ্যে জাতিসংঘ মহাসচিবের ইরাক সম্পর্কিত বিশেষ দূত সারজিয়ো ভিয়েরা দ্য মেলোও ছিলেন। সে দিনটি স্মরণে ‘বিশ্ব মানবিক দিবস’ হিসেবে জাতিসংঘ রেজ্যুলেশন করেছে ২০০৯ সালে।

বিডি প্রতিদিন

Back to top button