বগুড়া সদর উপজেলা

পুলিশের চোখ ফাঁকি দিতে গাঁজা দিয়ে বানানো মোটরসাইকেলের সিট

পুলিশের চোখ ফাঁকি দিতে প্রায় ৯ কেজি গাঁজা দিয়ে বানানো হয়েছে মোটরসাইকেলের সিট কভার। গাঁজা দিয়ে বানানো সেই সিটে বসে মোটরসাইকেল চালিয়ে কুড়িগ্রাম থেকে বগুড়া শহরে গাঁজা সরবরাহ করতে যাচ্ছিলেন সাঈদ নামের এক মাদক পাচারকারী। অনেক পথ চলেও এসেছেন। আর মাত্র ২০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিলেই পৌঁছে যেতেন গন্তব্যে। কিন্তু বিধি বাম, ধরা পড়ে গেছেন পুলিশের হাতে।

সাঈদ গাইবান্ধা সদর থানার নয়নপুর গ্রামের রুস্তম আলীর ছেলে। শুক্রবার (১ মে) বেলা ১২টার দিকে বগুড়ার মোকামতলায় চেকপোস্টে আটক করা হয় তাকে।

জানাগেছে, মোকামতলা বন্দর চেকপোস্টে মোটরসাইকেল (কুড়িগ্রাম -হ-১২-৪০৮৪) থামানোর সংকেত দেন কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশের টিএসআই আশুতোষ মৈত্র এবং এটিএসআই আহম্মদ আলী। মোটরসাইকেলের কাগজপত্র যাচাই করার সময় পুলিশের নজরে আসে যে, অন্যান্য মোটরসাইকেলের তুলনায় এই মোটরসাইকেলের সিট অস্বাভাবিক উঁচু। এরপর সিট খুলে তার দেখতে পান, সিটের নিচে বিপুল পরিমাণ গাঁজা। শুধু তাই নয় মোটরসাইকেলের সিটও ফোমের পরিবর্তে গাঁজা দিয়ে বানানো। সব মিলিয়ে মোটরসাইকেল থেকে ৮ কেজি ৮০০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়।

মোকামতলা ট্রাফিক ফাঁড়ির ইনচার্জ রেজাউল করিম খান বলেন, সূক্ষ্মভাবে না দেখলে বোঝার উপায় নাই পুরো সিট ফোমের পরিবর্তে গাঁজা দিয়ে বানানো হয়েছে। লাল পলিথিন দিয়ে মুড়িয়ে কালো সিট কভার দিয়ে ঢেকে রাখায় সহজে কারো সন্দেহ হবে না।

তিনি বলেন, গ্রেফতারকৃত সাঈদকে থানা পুলিশে হস্তান্তর করা হবে। খবর-বার্তা২৪

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button
error: Content is protected !!