বগুড়া জেলা পরিচিতি

বগুড়ায় তৈরিকৃত পণ্য বিদেশে রপ্তানি করে কোটি টাকা উপার্জন

বগুড়া লাইভ ডেস্কঃ বাংলাদেশজুড়ে বগুড়ার হালকা প্রকৌশল শিল্পের অনেক সুনাম,
বগুড়া থেকে বিদেশে পণ্য রপ্তানি ২ বছরের ব্যবধানে বেড়েছে সাত গুণ। গত বছর বগুড়া থেকে ভারত ও নেপালে পণ্য রপ্তানি করে আয় হয়েছে ৭ কোটি ২৩ লাখ ৩০ হাজার ৬৩২ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় রপ্তানি আয়ের পরিমাণ ৬০৭ কোটি ৫৭ লাখ ৭৩ হাজার ৮৮ টাকা।

বগুড়া থেকে ভারতে রপ্তানিপণ্যের মধ্যে রয়েছে সেচপাম্প, রাইস ব্র্যান অয়েল, পাটজাত সুতা ও পাটের তৈরি ব্যাগ এবং ধানমাড়াই যন্ত্র। বগুড়া থেকে নেপালে রপ্তানি হয়েছে ভুট্টা।

সেচপাম্প রপ্তানির মধ্য দিয়ে বগুড়ার পণ্যের যাত্রা শুরু হয় বিদেশের বাজারে। এখন ভারত, নেপাল ছাড়াও বগুড়ার পণ্য যাচ্ছে ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্য, অস্ট্রেলিয়া, চীন, জাপানসহ বিশ্বের অন্যান্য বাজারে।

ভারতের বাজারে বগুড়া থেকে বছরে রপ্তানি হয়েছে প্রায় দুই কোটি মার্কিন ডলারের পাটের সুতা, সুতলি ও পাটের ব্যাগ।

বগুড়ার বিভিন্ন কারখানায় দেশীয় কারিগরদের তৈরি সেচপাম্প রপ্তানি করা হচ্ছে ভারতে। উদ্যোক্তারা বলছেন, দেশীয় চাহিদা মিটিয়ে বছরে প্রায় ৫০ হাজার সেচপাম্প ছাড়াও অন্যান্য কৃষি যন্ত্রাংশ ভারতে রপ্তানি হচ্ছে। প্রতিটি পাম্পের রপ্তানিমূল্য গড়ে ১৮ মার্কিন ডলার। সেচপাম্প ছাড়াও এর যন্ত্রাংশ, লাইনার এবং টিউবওয়েলও রপ্তানি হচ্ছে ভারতে।

বগুড়ার শেরপুর ও কাহালু উপজেলার গ্রামীণ নারীদের তৈরি নানা ধরনের হস্তশিল্প পণ্য। এই পণ্য রপ্তানি হচ্ছে জার্মান, সুইডেন, ফ্রান্স, নেদারল্যান্ডস, ইংল্যান্ড, ইতালি, নরওয়ে, অস্ট্রেলিয়াসহ ইউরোপের ১৮টি দেশে। বগুড়ায় তৈরি বিশেষ ধরনের পোশাক রপ্তানি হচ্ছে সৌদি আরব, কাতার, দুবাইসহ কয়েকটি দেশে। বছরে প্রায় ৫০০ কোটি টাকার কাঁচা মরিচ, আলু ও সবজি রপ্তানি হচ্ছে বিদেশের বাজারে।

বগুড়ার শেরপুর, ধুনট উপজেলার শতাধিক গ্রামে নারীদের তৈরি জালি টুপি রপ্তানি হচ্ছে সৌদি আরব, ইরাক, ইরান, দুবাই, ভারত, পাকিস্তানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। বছরে কমপক্ষে ১০০ কোটি টাকার টুপি রপ্তানি হচ্ছে।

সম্পর্কৃত পোস্ট

error: Content is protected !!
Close
%d bloggers like this: