খেলাধুলাপ্রয়োজনীয় তথ্যবগুড়ার ইতিহাস

বগুড়ায় উত্তরাঞ্চলের একমাত্র ক্রিকেট ভেন্যু শহীদ চান্দু স্টেডিয়াম

অবস্থানঃ বগুড়া সদর পৌরসভার উত্তর-পশ্চিমস্থ প্রান্তে খান্দার বাজার বগুড়া জেলা সুইমিংপুল সন্নিকটে অবস্থিত।

ইতিহাসঃ শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামের পূর্বের নাম বগুড়া বিভাগীয় স্টেডিয়াম নামে পরিচিত ছিল । বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড উন্নয়ন কমিটির চেয়ারম্যান আরাফাত রহমান কোকোর প্রচেষ্টায় বগুড়া নির্মিত হয় শহীদ চাঁন্দু স্টেডিয়াম। আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে শ্রীলংকার বিরুদ্ধে শহীদ চাঁন্দু স্টেডিয়ামের অভিষেক হলেও যাত্রাটা শুরু হয়েছিল ২০০৪ খ্রিস্টাব্দে যুব বিশ্বকাপের ম্যাচ দিয়ে। এরপর জিম্বাবুয়ে ‘এ’ দলের সাথে বাংলাদেশ ‘এ’ দলের এবং ইংল্যান্ড যুব দলের সঙ্গে বিসিবি হাই পারফরম্যান্সের ম্যাচও আয়োজন করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। উক্ত সফল আয়োজন প্রত্যক্ষ করে আইসিসি ৩০ জানুয়ারী ২০০৬ খ্রিস্টাব্দে শহীদ চাঁন্দু স্টেডিয়ামকে আন্তর্জাতিক ভেন্যুর স্বীকৃতি দেয়। ২০০৬ খ্রিস্টাব্দে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ দিয়ে শহীদ চান্দু স্টেডিয়াম যাত্রা শুরু করে। উক্ত ম্যাচে বাংলাদেশ ১০ উইকেটে পরাজিত হয়।

টেস্ট ম্যাচ শেষে শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুইটি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৪ উইকেটের জয় পায় বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। এই জয়ের মাধ্যমে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম জয়ের স্বাধ পায় বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। উক্ত বছরই জিম্বাবুয়ে ও কেনিয়া সিরিজের তিনটি ম্যাচ শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। তিনটি ম্যাচেই বাংলাদেশ ক্রিকেট দল জয়লাভ করে। শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে পাঁচ ম্যাচের ৪টিতে জয়লাভ করে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

বিবরনঃ চাঁন্দু আন্তর্জাতিক মানের প্রেসবক্স, ভিআইপি বক্স, হসপিটালিটি বক্স, সঙ্গে দিবা-রাত্রীর ম্যাচ আয়োজনের জন্য ফ্লাড লাইট, দ্রুত পানি নিষ্কাশন ব্যাবস্থা, প্রতিকুল আবহাওয়াতে অনুশীলনের জন্য ইনডোর সুবিধা বিদ্যমান।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ
Tags

সম্পর্কৃত পোস্ট

Close